দাউদকান্দির জনগণই আমার প্রাণ, আমৃত্যু জনগণের পাশে থাকবো: মোহাম্মদ আলী

51

।। নিজস্ব প্রতিনিধি।।

কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলা পরিষদের চেয়ার‌ম্যান মেজর মোহাম্মদ আলী (অব.) বলেছেন, দাউদকান্দির জনগণই আমার প্রাণ, আমৃত্যু জনগণের পাশে থাকবো। আগামী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিনিধি হিসেবে ইনশাল্লাহ আবারো উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে  অংশগ্রহণ করবো।

মঙ্গলবার (২১ মে ২০১৯) বিটেশ্বর ইউনিয়নের কাদিরভাঙ্গা গ্রামে ২০১৯ সালের এসএসসি ও দাখিল পরীক্ষায় উত্তীর্ণ মেধাবী শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে গ্রামবাসীদের উদ্দেশ্যে তিনি এ কথা বলেন।

কৃতি শিক্ষার্থীদের হাতে বৃত্তি তুলে দিচ্ছেন মেজর মোহাম্মদ আলী (অব.)।

এ সময় তিনি বলেন, আপনাদের প্রতি আমার আর আমাদের দাউদকান্দি-মেঘনার জনমানুষের নেতা মেজর জেনারেল (অব.) সুবিদ আলী ভূঁইয়া এমপি মহোদয়ের কোন ক্ষোভ বা রাগ নেই। আপনাদের ইউনিয়নে বিগত জাতীয় নির্বাচনের দুদিন আগে খুনি মোশতাকের প্রেতাত্মা ভর করেছিলো, যার ফলে আওয়ামী লীগ সরকারের সকল সুযোগ-সুবিধা ভোগ করেও নির্বাচনের পূর্বক্ষণে আপনাদের ইউনিয়ন চেয়ারম্যান বিএনপি-জামায়াতের দালাল খোরশেদ আলম বিএনপির পক্ষে কাজ করেছে। কিন্তু আপনাদের দোয়ায়, আর জনগণের দেয়া ভোটের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর মনোনীত নৌকা মার্কা প্রতীকে বিপুল ভোটে জয়লাভ করেন সুবিদ আলী ভূঁইয়া এম. পি মহোদয়।  আপনাদের দোয়া আর ভালোবাসায় আমি কুমিল্লা জেলা ও চট্রগ্রাম বিভাগের শ্রেষ্ঠ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছি। আজ আপনাদের সামনে আমি ঘোষণা দিলাম, আগামী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনেও আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নির্দেশে ও তৃণমূল আওয়ামী লীগের সমর্থনে আবারো নির্বাচনে নৌকা মার্কা নিয়ে মাঠে নামবো। আপনাদের দোয়া-ভালোবাসায় আবারো বিপুলভোটে জয়ী হয়ে ইনশাআল্লাহ আপনাদের সেবা করে যাবো।

এসময় মেজর মোহাম্মদ আলী কাদিরভাঙ্গা গ্রামবাসীর জন্য উপহার হিসেবে একটি ব্রিজ বানিয়ে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন এবং কাদিয়ারভাঙ্গা প্রধানবাড়ি নিবাসী প্রতিবন্ধী বাবুল প্রধানকে নিজস্ব তহবিল থেকে ১০,০০০ টাকা অনুদান দেয়ার ঘোষণা দেন।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন, জাতীয় কৃষি পুরস্কারপ্রাপ্ত অধ্যাপক মতিন সৈকত, কুমিল্লা উ. জেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি রকিব উদ্দিন রকিব, উপজেলা মহিলা লীগের সভানেত্রী জেবুন নেসা জেবু, উপজেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক আক্তার হোসেন, উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি দুলাল সরদার ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়, কিন্তু ট্র্যাকব্যাক এবং পিংব্যাক খোলা.